শিরোনামঃ
কক্সবাজারে সেনা টহল জোরদার:সেনাবাহিনীর আহ্বানে সাধারণ মানুষের অভূতপূর্ব সাড়ানিজ বেতনের অর্থে অসহায় ৫ শ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন কউক চেয়ারম্যানকক্সবাজারেমাঠে নেমেছে সেনাবাহিনীকক্সবাজার সী-সাইড হাসপাতালে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাকক্সবাজারে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কাজী রাসেল মহিলাসহ আটকআটকের ১৪ দিনেও থানা হাজতে টমটম চালক আয়ুবঃ ক্রসফায়ারের নামে টাকা আদায়ের অভিযোগটেকনাফ সীমান্তে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মানব পাচারকারী নিহতমহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজআগামী দেড় মাসের মধ্যে কক্সবাজার শহরেরর প্রধান সড়কের কাজ শুরু করা হবে-লে: কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমদহ্নীলায় অবৈধভাবে মাটি পাচারের ৬টি ডাম্পার ট্রাক জব্দশিক্ষায় আলোকিত মানুষেরাই যুগযুগ ধরে বেঁচে থাকে-লে.কর্ণেল ফোরকান আহমদ”বিদেশি পর্যটকদের নিকট সৈকতকে তুলে ধরতে”ওয়েলকাম টু সার্ফিং সিটি”ভাস্কর্য স্থাপন করা হবে”টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ জালাল আটকটেকনাফে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবা কোহিনুর আটকউখিয়ায় বিজিবি’র সঙ্গে‘বন্দুকযুদ্ধে’ইয়াবাকারবারি নিহত
porno izle izmir escort sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam inönü üniversitesi taban puanları

কক্সবাজারেমাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী

IMG-e00baea5d0db6ceee39bf5ea3bd9923f-V.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি::পর্যটন নগর কক্সবাজার জেলার ০৫টি উপজেলা ও সকল জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমার নাগরিক ক্যাম্প এলাকা এবং বৃহত্তর চট্টগ্রামের ৮টি উপজেলায় বুধবার (২৫ মার্চ) ভোর থেকেই মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশনের চিকিৎসাদলসহ সেনাসদস্যরা। সেনাবাহিনীর একাধিক গাড়ি জেলাগুলোর প্রায় প্রতিটি এলাকাতেই টহল দিতে দেখা গেছে। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করে সেনাবাহিনীর কর্মপরিকল্পনা ঠিক করা হয় ও স্হানসমূহ সরেজমিনে পর্যবেক্ষন করা হয়।

বুধবার সকাল থেকেই সেনাবাহিনী টহল কার্যক্রম শুরু করেছে। কোনো জায়গায় বেশি লোকজন যেন সমবেত হতে না পারে, সবাই যেন নির্দিষ্ট সামাজিক দূরত্ব মেনে চলাফেরা করে এবং যথাযথভাবে সরকারী নির্দেশনাসমূহ মেনে চলে সেনাবাহিনী এই বিষয়গুলো নিশ্চিত করবে। প্রশাসনের তালিকা অনুযায়ী হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতের কাজে বেসামরিক প্রশাসনকে সহযোগিতা করবে সেনাবাহিনী। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগী পাওয়া গেলে তাদের চিকিৎসার ক্ষেত্রেও সেনাবাহিনী সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করবে। এছাড়া জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমার নাগরিক ক্যাম্প এলাকায় সেনাবাহিনীর পর্যাপ্ত সংখ্যক নতুন চেক্ পোষ্ট স্থাপন ও টহল কার্যক্রমের পরিধি বহুগুনে বৃদ্ধি করা হয়েছে। সীমিত করা হয়েছে বহিরাগতদের চলাচল।

বুধবার (২৫ মার্চ) সকাল থেকে জেলার বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সেনাবাহিনী মাঠে নামার পর থেকেই সাধারণ মানুষের বাহিরে আসার প্রবণতা কমে এসেছে। রাস্তাঘাটে খুব কম সংখ্যক মানুষের উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। অনেক এলাকা প্রায় জনমানবশূন্য। সমুদ্র সৈকতসহ পর্যটনকেন্দ্রগুলোও জনমানব শূন্য অবস্থায় দেখা গেছে। জেলার রাস্তাঘাট প্রায় ফাঁকা হয়ে পড়েছে। সেনাসদস্যরা মাইকিং করে, লিফলেট বিতরণ করে এবং প্রেষণার মাধ্যমে বাহিরে অবস্থানরত লোকদের ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য তাগিদ দিচ্ছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top