শিরোনামঃ
কক্সবাজারে সেনা টহল জোরদার:সেনাবাহিনীর আহ্বানে সাধারণ মানুষের অভূতপূর্ব সাড়ানিজ বেতনের অর্থে অসহায় ৫ শ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন কউক চেয়ারম্যানকক্সবাজারেমাঠে নেমেছে সেনাবাহিনীকক্সবাজার সী-সাইড হাসপাতালে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাকক্সবাজারে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কাজী রাসেল মহিলাসহ আটকআটকের ১৪ দিনেও থানা হাজতে টমটম চালক আয়ুবঃ ক্রসফায়ারের নামে টাকা আদায়ের অভিযোগটেকনাফ সীমান্তে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মানব পাচারকারী নিহতমহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজআগামী দেড় মাসের মধ্যে কক্সবাজার শহরেরর প্রধান সড়কের কাজ শুরু করা হবে-লে: কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমদহ্নীলায় অবৈধভাবে মাটি পাচারের ৬টি ডাম্পার ট্রাক জব্দশিক্ষায় আলোকিত মানুষেরাই যুগযুগ ধরে বেঁচে থাকে-লে.কর্ণেল ফোরকান আহমদ”বিদেশি পর্যটকদের নিকট সৈকতকে তুলে ধরতে”ওয়েলকাম টু সার্ফিং সিটি”ভাস্কর্য স্থাপন করা হবে”টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ জালাল আটকটেকনাফে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবা কোহিনুর আটকউখিয়ায় বিজিবি’র সঙ্গে‘বন্দুকযুদ্ধে’ইয়াবাকারবারি নিহত
porno izle izmir escort sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam inönü üniversitesi taban puanları

সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবির ঘটনায় ১৯ জন দালালের বিরুদ্ধে মামলা,আটক ৮

IMG_20200211_182116-1.jpg

বঙ্গোপসাগরে সেন্টমার্টিনের কাছে মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবির ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। প্রধান আসামি হলো: সৈয়দ আলম, সে টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালীয়াপাড়ার বাসিন্দা। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে টেকনাফ থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন কোস্টগার্ড কর্মকর্তা এসএম ইসলাম। এই মামলায় মঙ্গলবার রাত থেকে আজ সকাল পর্যন্ত আটক ৮ জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাস এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, সেন্টমার্টিনের কাছে ডুবন্ত কোরালে ধাক্কা খেয়ে ট্রলারডুবির ঘটনার মঙ্গলবার জীবিত উদ্ধার ৭২ জনকে টেকনাফ থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। আজ বুধবার সকালে সাগর থেকে উদ্ধার আরও একজনকে সেন্টমার্টিনেই রাখা হয়েছে। এ নিয়ে মোট ৭৩ জনকে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সদস্যরা। তাদের পরবর্তীতে কোথায় রাখা হবে সে নির্দেশনা দেবেন আদালত। পুলিশ আদালতের নির্দেশনার অপেক্ষায় আছে।

পুলিশ আরও জানায়, মানবপাচারের জন্য মালয়েশিয়াগামী ট্রলারটির পরিচালনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে আটক ৮ জনের মধ্যে রোহিঙ্গা ও স্থানীয় নাগরিক উভয়েই রয়েছে।
এর আগে, মঙ্গলবার প্রেস ব্রিফিংয়ে কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়- ১৩৮ জনকে বহনকারী ছোট ট্রলারটি ডুবন্ত কোরালের সঙ্গে বাড়ি খেয়ে তলা ফেটে ডুবে যায়। নিহতদের অনেকের লাশই পানির নিচ থেকে টেনে বের করতে হয়েছে। এসময় চার মাঝিকে আটক করা হয়।

এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনের মৃতদেহ এবং জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ৭৩ জনকে। বাকিরা নিখোঁজ রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালীয়াপাড়া সাগর উপকূল হয়ে অবৈধভাবে সাগরপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় সেন্টমার্টিনের থেকে ৩-৪ নটিক্যাল মাইল পূর্ব-দক্ষিণে পাথরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে পানিতে ডুবে যায় ট্রলারটি। পরে মাছ ধরার জেলেদের মাধ্যমে খবর পেয়ে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সদস্যরা উদ্ধার অভিযান শুরু করে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top