শিরোনামঃ
কক্সবাজারে সেনা টহল জোরদার:সেনাবাহিনীর আহ্বানে সাধারণ মানুষের অভূতপূর্ব সাড়ানিজ বেতনের অর্থে অসহায় ৫ শ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন কউক চেয়ারম্যানকক্সবাজারেমাঠে নেমেছে সেনাবাহিনীকক্সবাজার সী-সাইড হাসপাতালে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাকক্সবাজারে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কাজী রাসেল মহিলাসহ আটকআটকের ১৪ দিনেও থানা হাজতে টমটম চালক আয়ুবঃ ক্রসফায়ারের নামে টাকা আদায়ের অভিযোগটেকনাফ সীমান্তে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মানব পাচারকারী নিহতমহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজআগামী দেড় মাসের মধ্যে কক্সবাজার শহরেরর প্রধান সড়কের কাজ শুরু করা হবে-লে: কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমদহ্নীলায় অবৈধভাবে মাটি পাচারের ৬টি ডাম্পার ট্রাক জব্দশিক্ষায় আলোকিত মানুষেরাই যুগযুগ ধরে বেঁচে থাকে-লে.কর্ণেল ফোরকান আহমদ”বিদেশি পর্যটকদের নিকট সৈকতকে তুলে ধরতে”ওয়েলকাম টু সার্ফিং সিটি”ভাস্কর্য স্থাপন করা হবে”টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ জালাল আটকটেকনাফে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবা কোহিনুর আটকউখিয়ায় বিজিবি’র সঙ্গে‘বন্দুকযুদ্ধে’ইয়াবাকারবারি নিহত
porno izle izmir escort sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam inönü üniversitesi taban puanları

জিলহজ মাসের প্রথম ১০ দিন যে আমল করবেন

amal-20190801150515.jpg

অনলাইন ডেস্ক :: আরবি (হিজরি) বছরের শেষ মাস জিলহজ। কুরআনে বর্ণিত হারাম মাসসমূহের একটি। এ মাসে অনুষ্ঠিত হয় পবিত্র হজ। এ মাসের ফজিলত বর্ণনায় নাজিল হয়েছে কুরআনের আয়াত। এ মাসের ইবাদত-বন্দেগি করতে বিশেষ তাগিদ দিয়েছেন স্বয়ং বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

জিলহজ মাসের প্রথম ১০ দিন এমন ইবাদত রয়েছে যা পালন করা মোস্তাহাব। এ দিনগুলোতে নামাজ, রোজা, দান-সাদকাসহ বিভিন্ন ইবাদত বন্দেগি করার জন্য গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। আর তাহলো-

>> নামাজ
জিহজের প্রথম ১০ দিন ফরজ নামাজগুলো অন্যান্য সময়ের মতোই যথা সময়ে আদায় করা। পাশাপাশি বেশি বেশি নফল নামাজ আদায় করা। এমনিতেই বেশি বেশি নফল নামাজ বান্দাকে আল্লাহ অতি কাছে নিয়ে যায়। তাই জিলহজ মাসের প্রথম ১০ দিনও বেশি বেশি নামাজ পড়া। হাদিসে এসেছে-
হজরত সাওবান রাদিআল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি, ‘তুমি বেশি বেশি সেজদা কর। কারণ তুমি এমন কোনো সেজদা কর না, যার কারণে আল্লাহ তোমার মর্যাদা বৃদ্ধি করেন না এবং তোমার গোনাহ ক্ষমা করেন না। (মুসলিম)

>> রোজা
আল্লাহর নৈকট্য অর্জনে রোজা অন্যতম আমল। এ দিনগুলোতে রোজা পালনও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। জিলহজ মাসের আরাফার দিন রোজা পালন সম্পর্কে হাদিসের ঘোষণা এমন-
হজরত হুনাইদা বিন খালেদ রাদিয়াল্লাহু আনহু তার স্ত্রী থেকে বর্ণনা করেন, তার স্ত্রী রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের এক স্ত্রী থেকে বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জিলহজ মাসের নয় তারিখ, আশুরার দিন ও প্রত্যেক মাসের তিন দিন রোজা পালন করতেন।’ (মুসনাদে আহমদ, নাসাঈ, আবু দাউদ)

>> তাসবিহ
জিলহজ মাসের এ ফজিলতপূর্ণ প্রথম দশকে তাকবির (اَللهُ اَكْبَر), তাহলিল (لَا اِلهَ اِلَّا الله) ও তাহমিদ (اَلْحَمْدُ لِلَّه) বেশি বেশি পড়া। হাদিসে এসেছে-
হজরত ইবনে ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, তোমরা বেশি বেশি তাকবির, তাহলিল, ও তাহমিদ পড়।

ইমাম বুখারি রাহমাতুল্লাহি আলাইহি বলেছেন, ‘হজরত ইবনে ওমর, আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু জিলহজের এ ১০ দিন তাকবির বলতে বলতে বাজারের জন্য বের হতেন। মানুষরাও তাদের দেখে দেখে তাকবির বলতো।

ইমাম বুখারি রাহমাতুল্লাহি আলাইহি আরো বলেন, ‘ইবনে ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু মিনায় তার তাবুতে তাকবির বলতেন, লোকেরা তা শুনতো অতঃপর মানুষরাও তার অনুসরণ করে তাকবির বলতো। এক সময় পুরো মিনা তাকবিরের ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠতো।

সুতরং সাহাবায়ে কেরামের অনুসরণে মুমিন মুসলমানের উচিত, জিলহজ মাসের প্রথম দিনগুলোতে বেশি বেশি নামাজ, রোজা, দান-সাদকা, তাসবিহ পাঠসহ যাবতীয় নফল ইবাদত ও ভালো কাজে অতিবাহিত করা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে জিলহজ মাসের প্রথম ১০ দিন রোজা পালনসহ যাবতীয় ইবাদত-বন্দেগির মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের তাওফিক দান করুন। আমিন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top